তরুণীর সঙ্গে সেক্সটিং করে সাসপেন্ড হলেন লেবার পার্টির সাংসদ

71

লন্ডন,২৭ ফেব্রুয়ারি: এসএমএস কাণ্ডের জেরে গার্লফ্রেন্ড ক্লেয়ার হ্যামিলটন সম্পর্ক ভাঙার ইঙ্গিত দিয়ে আগেই ছেড়ে চলে গেছেন। এবার লেবার পার্টির ওই এমপিকে সাসপেন্ডও করল দল! লেবার পার্টির এক মুখপাত্র বৃহস্পতিবার সিমন ডানচুককে সাসপেন্ড করার কথা ঘোষণা করেছেন।

রকডেলের সাংসদ সিমন ডানচুকের বিরুদ্ধে অভিযোগ, নাবালিকা এক ছাত্রীর সঙ্গে তিনি অশ্লীল এসএমএস চালাচালি করেছেন। এই খবর প্রকাশ্যে এলে, ডানচুককে নিয়ে অস্বস্তিতে পড়তে হয় লেবার পার্টিকে। দলের ভাবমূর্তি বজায় রাখতে ডানচুককে সাসপেন্ড করতে বাধ্য হয় লেবার পার্টি।

যে তরুণীর সঙ্গে ‘সম্পর্ক’ নিয়ে এতকাণ্ড, তিনি সোফেনা হৌলিয়ান। অভিযোগ, ১৭ বছরের সোফেনার সঙ্গে নিয়মিত অশ্লীল এসএমএস চালাচালি শুরু করেছিলেন লেবার এমপি। আচমকাই বান্ধবী ক্লেয়ার হ্যামিলটন ডানচুকের এই সম্পর্কের কথা জানতে পারেন। চালাচালি হওয়া মেসেজগুলো পড়ে মেজাজ হারান ক্লেয়ার। মিডিয়াতেও ফাঁস হয়ে যায় এই ডানচুকের এই সম্পর্কের কথা।

লেবার পার্টির মুখপাত্র এদিন সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, দলের সাধারণ সম্পাদকের নির্দেশে সিমন ডানচুক পার্টির সদস্যপদ খুইয়েছেন। তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ দল তদন্ত করে দেখছে। ন্যাশনাল এগজিকিউটিভ কমিটির রিপোর্ট হাতে আসার পরেই পরবর্তী পদক্ষেপ করা হবে।

বছর ৪৯-এর এই লেবার এমপি অবশ্য তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ নিয়ে মুখে কুলুপ এঁটেছেন। তবে ট্যুইটারে এসএমএস কাণ্ডের জন্য ক্ষমা চেয়ে নেন।নিজেকে স্টুপিড বলেও উল্লেখ করেন।

এই অশ্লীল এসএমএস কাণ্ডের জন্য বিরোধীদের তোপের মুখে পড়তে হয় ডানচুককে! অভিযোগ ওঠে, ওই তরুণীকে এক্সপ্লয়েট করাই উদ্দেশ্য ছিল ডানচুকের! তাঁর দলের এমপিদের বক্তব্য, এমতাবস্থায় রকডেলের এমপিকে এসএমএস চালাচালি বন্ধ করে, এই সম্পর্ক থেকে বেরিয়ে আসতে হবে! এমপি হিসেবে তাঁর একটা সামাজিক দায়িত্ব রয়েছে! সেখানে নাবালিকাকে অশ্লীল এসএমএস করে অপরাধাই করেছেন ডানচুক!

এর আগে সেলফি ক্যুইন ক্যারেনের সঙ্গেও সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েছিলেন লেবার পার্টির এই এমপি!

সূত্র: এই সময়, কালের কণ্ঠ ।