লন্ডনে মুসল্লিদের ওপর সন্ত্রাসী হামলায় নিহত ব্যক্তি বাংলাদেশি

34

বিলেতবাংলা ২০ জুন: লন্ডনে নামাজ শেষে একটি মসজিদ থেকে ফিরতে থাকা লোকজনের ওপর গাড়ি উঠিয়ে দেওয়ার ঘটনায় নিহত ব্যক্তি বাংলাদেশি। একজন প্রত্যক্ষদর্শীর বরাত দিয়ে দ্য টেলিগ্রাফ এ তথ্য জানিয়েছে।  পুলিশ নিহতের পরিচয় এখনও প্রকাশ না করলেও লন্ডনের বাংলা অনলাইন ইউকেবিডি টাইমস নিহতের মেয়ে ফারজানা’র বরাত দিয়ে জানিয়েছে তিনি সিলেট জেলার বিশ্বনাথ থানার স্বরওয়ালা গ্রামের অধিবাসী। নাম মাকরম আলী (হিরন মিয়া)। আনুমানিক ৫২ বছর বয়সী মাকরম আলী দীর্ঘদিন থেকে ফিন্সবারী পার্কে বসবাস করে আসছিলেন। মাকরাম আলীর দ্বিতীয় মেয়ে ফারজানা ইউকেবিডি টাইমসকে জানান, প্রতি রমজানের মতো গতরাতেও তার বাবা মসজিদে তারাবী পড়তে গিয়েছিলেন। নামাযের পর সন্ত্রাসীদের ভ্যান হামলায় পিষ্ট হয়ে চিরদিনের জন্য তাদের এতিম করে তিনি হারিয়ে যান। তার বাবার হত্যাকারীর দৃস্টান্তমুলক শাস্তির দাবী জানান ফারজানা। তার পিতার বিদেহী আত্মার মাগফেরাতের জন্য তিনি সকলের কাছে দোয়াও কামনা করেন ।

রোববার উত্তর লন্ডনের সেভেন সিস্টারস রোডের ফিনসবাড়ী পার্ক মসজিদে এই হামলায় একজন নিহত এবং ১০ জন আহত হয়েছেন। দাতব্য সংস্থার কর্মী সুলতান আহমেদ সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছেন, তার চাচা ঘটনাস্থলে ছিলেন। মসজিদ থেকে বের হওয়ার পর তার চাচার চোখের সামনেই গাড়িটি মুসল্লিদের ওপর উঠিয়ে দেওয়ার ঘটনা ঘটে।

তিনি বলেন, ‘আমার চাচা কেবল মসজিদ থেকে বের হচ্ছিলেন, আর ওই সময় তার সামনেই প্রবীণ ওই লোকটির (মাকরাম আলী) ওপর গাড়ি উঠে দেওয়া হয়। এতে তিনি আহত হয়ে মাটিতে পড়ে যান। একদল মুসুল্লি যখন  তাকে ওঠানোর চেষ্টা করছিলেন তখন তাদের ওপরও গাড়ি উঠিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করা হয় এবং ওই প্রবীণকে চাপা দেওয়া হয়। সুলতান বলেন, ‘আমার চাচা বলছিলেন, ওই সময় গাড়ির চালক চিৎকার করে বলছিল, ‘আমি সব মুসলমানকে হত্যা করতে চাই।