যথেষ্ট হয়েছে,আর নয়-তেরেসা মে:জঙ্গিবাদ কঠোর হাতে দমন করবে যুক্তরাজ্য

33

4.640x640বিলেতবাংলা ৪ জুন: যুক্তরাজ্যে জাতীয় নির্বাচনের মাত্র চারদিন আগে লন্ডন ব্রিজে রক্তাক্ত সন্ত্রাসী হামলায় ঘটনায় ইসলামপন্থি জঙ্গিদের কঠোর হাতে দমনের অঙ্গীকার করেছেন প্রধানমন্ত্রী টেরিজা মে।

 

হামলার পর ডাউনিং স্ট্রিটের বাইরে এক বক্তৃতায় মে বলেন, “যথেষ্ট হয়েছে, যথেষ্ট। সবকিছু যেভাবে চলছে সেভাবে চলতে দিতে পারি না, দেওয়াও যাবে না।”

 

শনিবার স্থানীয় সময় রাত ১০টার দিকে লন্ডন ব্রিজে ভিড়ের মধ্যে একটি ভ্যান চালিয়ে দেয় তিন হামলাকারী। এর পরপরই তারা সাদা রঙের ওই ভ্যান থেকে ছুরি হাতে বেরিয়ে আসে এবং কাছের বারা মার্কেট এলাকায় সাধারণ মানুষের ওপর হামলা চালায়।

 

হামলাকারীদের লক্ষ্য করে পুলিশ ৫০ বুলেট ছোড়ে। এতে একজন সাধারণ মানুষও আহত হয়। হামলাকারীদের মারতে এত বেশি সংখ্যক রাউন্ড গুলি ছোড়া ‘নজিরবিহীন’, বলেছেন সন্ত্রাস বিরোধী এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা।

 

হামলায় সাত জন নিহত এবং ৪৮ জন আহত হয়েছে। নিহতদের মধ্যে কানাডার একজন নাগরিক আছেন বলে নিশ্চিত করেছেন কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো।

 

স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষের বরাত দিয়ে প্রেস অ্যাসোসিয়েশন নিউজ এজেন্সি জানিয়েছে, আহতদের ২১ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। প্রধানমন্ত্রী মে আহতদের দেখতে হাসপাতালে গেছেন।

 

হামলায় জড়িত সন্দেহে পূর্ব লন্ডনের বার্কিং এলাকার একটি ফ্ল্যাট থেকে ১২ জনকে আটক করেছে পুলিশ। ওই ফ্ল্যাটটি তিন হামলাকারীর মধ্যে একজনের বলে জানা গেছে।  বার্কিংয়ের আরও বেশ কয়েকটি জায়গায় অভিযান চলছে বলেও জানিয়েছে পুলিশ।

 

লন্ডন ব্রিজে হামলার পর রোববার সকালে হোয়াইট হলে জ্যেষ্ঠ মন্ত্রী ও যুক্তরাজ্য সরকারের জরুরি নিরাপত্তা বিষয়ক কোবরা কমিটির প্রধানদের নিয়ে বৈঠক করেন প্রধানমন্ত্রী মে।

 

যুক্তরাজ্যের সন্ত্রাস-বিরোধী কৌশল পুনর্বিবেচনার পাশাপাশি চরমপন্থিদের জন্য ইন্টারনেট আর ‘নিরাপদ’ থাকবে না বলে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন তিনি।4.640x640