‘একুশের প্রেরণা থেকেই উদীচীর জন্ম‘: উদীচীর একুশের অনুষ্ঠানে বক্তারা

470

বিলেতবাংলা ২ মার্চ:একুশের প্রেরণা থেকেই উদীচীর জন্ম। মহান ভাষা আন্দোলন ও শহীদ দিবসের অনুষ্ঠানে বক্তারা এ কথা বলেন। ৫২ ভাষা আন্দোলনে প্রগতিশীল রাজনীতিক ও সংস্কৃতিকর্মীদের ভুমিকা ছিল অগ্রগন্য। ভাষা আন্দোলনের ধারাবাহিকতায় ১৯৬৮ সালে প্রগতিশীল সাংস্কৃতিক বিকাশের লক্ষ্যে শিল্পী সংগ্রামী সত্যেন সেন উদীচী প্রতিষ্ঠা করেন।Udichi2

২৬ ফেব্রুয়ারি পূর্ব লন্ডনের কবি নজরুল সেন্টারে যুক্তরাজ্য উদীচী ও সত্যেন সেন পারফর্মিং আটর্স মহান শহীদ দিবস ও আর্ন্তজাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে আলোচনাসভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। উদীচীর সভাপতি হারুন অর রশিদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনাসভায় অংশ নেন উদীচীর কেন্দ্রীয় কমিটির সহসভাপতি ডা. রফিকুল হাসান খান জিন্নাহ,কবি হামিদ মোহাম্মদ,সাবেক কাউন্সিলার মতিনুজ্জামান, কমিউনিস্ট পাটির আবিদ আলী,কবি ইকবাল হোসেন বুলবুল, যুব ইউনিয়নের সুশান্ত দাস,ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সৈয়দ এনামুল ইসলাম,নারী দিগন্তের সেক্রেটারি নাসিমা কাজল,নিমূল কমিটির কেন্দ্রীয় সদস্য আনসার আহমদ উল্লাহ,সাংবাদিক নিলুফা ইয়াসমীন,মুক্তিযোদ্ধা লোকমান আহমেদ,ডা.হাসনীন চৌধুরী, ও উদীচীর কেন্দ্রীয় সদস্য গোপাল দাশ । সভা পরিচালনা করেন যুক্তরাজ্য উদীচীর সেক্রেটারি সাহাব উদ্দিন বাচ্চু ও আমিনা আলী। পরে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে অংশগ্রহন করে সত্যেন সেন স্কুলের ক্ষুদে শিল্পীরা ও উদীচীর শিল্পীরা।সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে নেতৃত্ব দেন রবীন্দ্রসঙ্গীত শিল্পী ডা. ইমতিয়াজ।  অনুষ্ঠানে লিভার্টি আটর্সের কর্মীরা বহুভাষী একটি কথিকা উপস্থাপন করে। কথিকায় অংশ নেয় সজিব থানভীর আল রশিদ, হাফা আতিয়া আহমেদ, রাফা মুনতাহা আহেমদ, আদিত্য হক সাঈদ ও অনাবা হক সাঈদ। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন সেলিনা শাফি।এছাড়া কবিতা আবৃত্তি করেন আবৃত্তিকার বন্যা চক্রবর্তী ও কবি ইকবাল হোসেন বুলবুল।‘আমার ভায়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি‘ কালজয়ী একুশের এ গান ও জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘটে।Udhichi