দরজা খুলেই নারী জঙ্গিরা ছুড়ে মারে মরিচের গুঁড়া

71

বিলেতবাংলা ডেস্ক, ১০ সেপ্টেম্বর: রাত সাড়ে ৭টা। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে পুলিশ অভিযান চালায় আজিমপুরের হাজী কায়সারের বাড়িতে। বিজিবি সদর দফতরের ২ নম্বর গেইট সংলগ্ন ২০৯/৫ নম্বরের ছয় তলা বাড়ির দ্বিতীয় তলায় গিয়ে দরজা ধাক্কা দেন পুলিশ সদস্যরা। আসছি বলে ভেতর থেকে মহিলা সদস্যরা ছোরা ও মরিচের গুঁড়া হাতে নিয়ে দরজা খোলে। কিছু বুঝে ওঠার আগেই নারী জঙ্গিরা পুলিশ সদস্যদের লক্ষ্য করে মরিচের গুঁড়া ছুড়ে মারে।তাদের একজন দুই পুলিশ সদস্যকে ছুরিকাঘাত করে দৌড়ে বাসা থেকে বেরিয়ে পড়ে।

কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের অতিরিক্ত উপ কমিশনার মোহাম্মদ ছানোয়ার হোসেন জানান, ‘নারী জঙ্গিদের অতর্কিত হামলার পাশাপাশি পুরুষ জঙ্গি সদস্য তাদের লক্ষ্য করে বোমা হামলা চালায়। বোমার  স্প্লিন্টারে ও ছুরিকাঘাতে আহত হন পাঁচ পুলিশ সদস্য। পুলিশ পাল্টা গুলি চালালে পুরুষ জঙ্গি নিহত ও তিন নারী জঙ্গি আহত হয়। আহতদের ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

আহত তিন নারী জঙ্গি হচ্ছে মিরপুরের রূপনগরে পুলিশের অভিযানে নিহত জঙ্গি মেজর জাহিদের স্ত্রী জেবুন্নাহার শিলা,অপর দুজন শাহেলা ও শারমিন। ওই বাসা থেকে মেজর জাহিদের দুই শিশু সন্তানকেও উদ্ধার করেছে পুলিশ। দুই শিশুকে একজন নারী পুলিশ কর্মকর্তার তত্ত্বাবধানে রাখা হয়েছে।

এলাকার বাসিন্দা প্রত্যক্ষদর্শী হাবিবুর রহমান বলেন , ‘গোলাগুলির এক পর্যায়ে সেলোয়ার কামিজ পরা এক নারীকে ছুরি হাতে দৌড়াতে দেখি। এ সময় পুলিশ ফাঁকা গুলি করে। একই সময় আহত এক পুলিশ সদস্য চিৎকার ঘটনাস্থলে আরও পুলিশ সদস্যকে পাঠাতে বলেন। তখন গুলিবিদ্ধ অবস্থায় এক নারী সদস্যকে পুলিশ আটক করা হয়।