ইউরোর শেষ ষোলোয় উঠল ফ্রান্স

72

খেলাধুলা ডেস্ক: গ্রুপ পর্বে টানা দুই ম্যাচ জিতে প্রথম দল হিসেবে ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের শেষ ষোলোয় উঠেছে ফ্রান্স। এই প্রথম বড় কোনও প্রতিযোগিতায় খেলার সুযোগ পাওয়া আলবেনিয়াকে ২-০ গোলে হারিয়ে নকআউট পর্ব নিশ্চিত করেছে স্বাগতিকরা। ফরাসিদের হয়ে গোল দুটি করেছেন আন্তনিও গ্রিজম্যান ও দিমিত্রি পায়েত। ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপে গ্রুপ ‘এ’ থেকে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে শেষ পাঁচ মিনিটের দুই গোলে আলবেনিয়াকে হারিয়েছে ফরাসিরা। এর আগে প্রথম ম্যাচে রোমানিয়ার বিপক্ষে জয় পেয়েছে ফ্রান্স।

‘এ’ গ্রুপে প্রত্যেক দলের দুটো করে ম্যাচ শেষে ছয় পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে ফ্রান্স। দ্বিতীয় স্থানে থাকা সুইজারল্যান্ডের পয়েন্ট চার। এক পয়েন্ট নিয়ে রোমানিয়ার অবস্থান তৃতীয়। দুই ম্যাচেই হেরে যাওয়া আলবেনিয়া পড়ে আছে সবার নিচে।

মার্সেইয়ের স্তাদে ভেলোদ্রোমে প্রথমার্ধে কোনও দলই তেমন ধারালো আক্রমণ করতে পারেনি। বিশেষ করে ফ্রান্স যেন কিছুটা এলোমেলো, পরিকল্পনাহীন ফুটবল খেলেছে। দ্বিতীয়ার্ধের শুরু থেকে অবশ্য প্রতিপক্ষের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়েছে ফ্রান্স। দ্বিতীয় মিনিটেই এগিয়ে যেতে পারতো স্বাগতিকরা। কিন্তু অলিভার জিরুদের ক্রস আলবেনিয়া ডিফেন্সকে ফাঁকি দিলেও ঠিকমতো মাথা ছোঁয়াতে পারেননি কিংসলে কোম্যান।

৫৩ মিনিটে আরেকটু হলে গোটা স্টেডিয়ামকে স্তব্ধ করে দিতো আলবেনিয়া। দারুণ এক আক্রমণ থেকে ফ্রান্সের পোস্ট লক্ষ্য করে শট নিয়েছিলেন এরমির লেনইয়ানি। বল গোলরক্ষক হুগো লরিসকে পরাস্ত করলেও ফিরে এসেছে সাইডবারে লেগে। ৬৭তম মিনিটে ম্যাচের সহজতম সুযোগটি পায় ফ্রান্স; কিন্তু ছয় গজ বক্সের বাইরে থেকে লক্ষ্যভ্রষ্ট হেড করেন জিরুদ। পরের মিনিটে দুর্ভাগ্য বাঁধ সাধে; এই আর্সেনাল স্ট্রাইকারের জোরালো হেড পোস্টে লাগে।

এরপরই অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের হয়ে দারুণ একটি মৌসুম কাটানো ফরোয়ার্ড গ্রিজমানকে মাঠে নামান কোচ। তাতে আক্রমণের ধারও বাড়ে, কিন্তু শেষ ১৫ মিনিটে পুরোপুরি রক্ষণাত্মক হয়ে পড়া আলবেনিয়ার প্রাচীর ভাঙতে পারছিল না পগবা-গ্রিজমানরা।

অবশেষে নির্ধারিত সময়ের শেষ মিনিটে আদিল রামির ক্রসে দুর্দান্ত এক হেডে দলকে এগিয়ে দেন গ্রিজমান। বল জালে ঢোকা দেখা ছাড়া কিছুই করার ছিল না গোলরক্ষকের। আর শেষ বাঁশির কয়েক সেকেন্ড আগে পায়েতের নিখুঁত শট নিশ্চিত করেছে ফ্রান্সের তিন পয়েন্ট প্রাপ্তি।

বুধবার ‘এ’ গ্রুপের আগের ম্যাচে রোমানিয়া ও সুইজারল্যান্ড ১-১ গোলে ড্র করেছে। ১৮ মিনিটে বোগদান স্তাংকুর সফল পেনাল্টি রোমানিয়ানদের এগিয়ে দিলেও ৫৭ মিনিটে সুইসদের সমতায় ফিরিয়েছেন আদমির মেহমেদি।