২৪ ঘণ্টার মধ্যে তনুর খুনীর গ্রেপ্তার চেয়ে রিট

62

বিলেতবাংলা ডেস্ক, ৩ এপ্রিল: কুমিল্লায় কলেজছাত্রী সোহাগী জাহান তনু হত্যায় জড়িতদের গ্রেপ্তার এবং বিচারিক তদন্তের নির্দেশনা চেয়ে রিট আবেদন করেছেন সুপ্রিম কোর্টের এক আইনজীবী।

সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ইউনুছ আলী আকন্দ রোববার হাই কোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় এই রিট আবেদন জমা দেন।

সোমবার বিচারপতি সৈয়দ মোহাম্মদ দস্তগীর হোসেন ও বিচারপতি এ কে এম সাহিদুল হকের হাই কোর্ট বেঞ্চে এ আবেদনের ওপর শুনানি হতে পারে বলে জানিয়েছেন তিনি।

আবেদন জমা দেওয়ার পর ইউনুছ আলী গণমাধ্যমকে বলেন, তনু হত্যার পর এখন পর্যন্ত জড়িত কাউকে গ্রেপ্তার করা যায়নি। এ ব্যাপারে ‘নিষ্ক্রিয়তা চালেঞ্জ করে’ আবেদনটি করা হয়েছে।

“রিট আবেদনে হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের ২৪ ঘণ্টার মধ্যে গ্রেপ্তার, ওই ঘটনায় বিচারিক তদন্তের নির্দেশনা এবং তনুর পরিবারকে ৩০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়ার নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে। এর সঙ্গে সংবিধানের ২৮(৪) অনুচ্ছেদ অনুসারে নিরাপত্তা নিশ্চিতের নির্দেশনাও চাওয়া হয়েছে।”

ভিক্টোরিয়া কলেজের ছাত্রী তনু গত ২০ মার্চ কুমিল্লা সেনানিবাস এলকার মধ্যে খুন হওয়ার পর থেকে প্রতিবাদের ঝড় বইছে সারাদেশে। থানা পুলিশ, ডিবি হয়ে এখন হত্যাকাণ্ডের তদন্ত করছে সিআইডি। তবে ১৩ দিনেও গ্রেপ্তার হয়নি কেউ।

এই তরুণীকে খুনের আগে ধর্ষণ করা হয়েছিল বলে ধারণা করা হচ্ছে। আদালতের নির্দেশে লাশ পুনরায় তুলে ময়নাতদন্তও হয়েছে।

ইউনুছ আলী জানান, ওই হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের গ্রেপ্তারে ‘বিবাদীদের নিষ্ক্রিয়তা’ কেন বেআইনি ঘোষণা করা হবে না- তা জানতে রুল চাওয়া হয়েছে তার আবেদনে।

স্বরাষ্ট্র সচিব, প্রতিরক্ষা সচিব, পুলিশের মহাপরিদর্শক, কুমিল্লার পুলিশ সুপার ও কুমিল্লা কতোয়ালি থানার ওসিসহ আটজনকে এই আবেদনে বিবাদী করা হয়েছে।