নতুন ধারার রাজনীতি ও সরকার প্রতিষ্ঠা করবো : খালেদা জিয়া

56

বিলেতবাংলাডেস্ক, ১৯ মার্চ: আগামীতে নতুন ধারার রাজনীতির মাধ্যমে সরকার প্রতিষ্ঠা করতে চায় বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপি, এমনটাই জানিয়েছেন দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। তিনি বলেছেন, বিএনপি জঙ্গিবাদী কর্মকাণ্ড এবং সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে। ক্ষমতায় গেলে এ ধরনের কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে কার্যকর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। বাংলাদেশে সুশাসন এনে দেবে বিএনপি। সব পর্যায়ে শিক্ষার গুণগত মান বৃদ্ধি করা হবে। শুধু ধনীদের জন্য শিক্ষা নয়, সব ধরনের মানুষের জন্য শিক্ষার ব্যবস্থা করা হবে। বিষয়ভিত্তিক শিক্ষা-ধর্মীয় শিক্ষা এবং ভাষায় শিক্ষায় ওপর গুরুত্ব দেওয়া হবে। আজ শনিবার দুপুর পৌনে ১টার দিকে রাজধানীর রমনার ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউট অব বাংলাদেশ মিলনায়তনে বিএনপির ষষ্ঠ কাউন্সিলের বক্তব্যে খালেদা জিয়া এসব কথা বলেন।

খালেদা জিয়া বলেন, চাহিদাভিত্তিক দক্ষতা বৃদ্ধিতে জোর দেওয়া হবে। মেধাবীদের বৃত্তি দিতে বিশেষ তহবিল করা হবে। মেয়েদের জন্য শিক্ষা আরও সম্প্রসারিত হবে। প্রতিবন্ধীদের উন্নত শিক্ষার ব্যবস্থা করা হবে। এ ছাড়া কৃষকদের জন্য শষ্য বিমা চালু করা হবে। উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধি করার সব রকম কার্যক্রম হাতে নেওয়া হবে। বিএনপি অন্য কোনো রাষ্ট্রের জন্য সমস্যা সৃষ্টি করতে চায় না উল্লেখ করে তিনি বলেন, একই ভাবে বিএনপি আশা করে যে- বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে কেউ হস্তক্ষেপ করবে না। বিএনপি প্রতিবেশী দেশগুলোর সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক গড়তে চায়। এ ছাড়া আন্তর্জাতিক যোগাযোগে বাস্তববাদী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

বিএনপি নেতাকর্মীদের উদ্দেশে খালেদা জিয়া বলেন, দেশে শৃঙ্খলা ফেরাতে হবে। এই কাউন্সিল থেকেই যেন এ পথ আসতে পরে সে লক্ষ্যে কাজ করে যেতে হবে। দেশে বর্তমানে সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানগুলো দুর্নীতিতে নিমজ্জিত উল্লেখ করে খালেদা জিয়া বলেন, এ থেকে মুক্তি দেবে বিএনপি। সরকারি কোনো কাজে ব্যক্তিগত বিষয়-বিশ্বাস-অবিশ্বাসকে কাজে লাগানো হবে না। সব কালা কানুন বাতিল করা হবে। দেশে মানবাধিকার প্রতিষ্ঠা করা হবে। নতুন ধারার সরকার ও রাজনীতি করতে চায় বিএনপি। গণতান্ত্রিক দল হিসেবে আমাদের কাছে গণতন্ত্রের কোনো বিকল্প নেই।